Bnanews24.com
Home » লোহাগাড়ায় মুদি দোকানদারের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
বৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃৃহত্তর চট্টগ্রাম সব খবর

লোহাগাড়ায় মুদি দোকানদারের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

লোহাগাড়ায় ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
বিএনএ, লোহাগাড়া:  চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ফরিয়াদেরকুলের পুর্ব এলাকায় গহীন জঙ্গলে ভগরতির খামারের পার্শ্বে পাহাড়ের উপরে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে  পুলিশ।
বুধবার(৭সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে লোহাগাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, এসআই মোজাম্মেল হক, এসআই সাইদুল আলমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম উক্ত এলাক হতে ওই মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত ব্যক্তির নাম পরিমল দাশ (৫৭)। তিনি পদুয়া ৩নং ওয়ার্ডস্থ হিন্দু উত্তর পাড়ার মৃত প্রানহরী দাশের পুত্র।
 জানা যায়, পরিমল দাশ বিগত ২০বছর ধরে পদুয়া বাজারে মুদির দোকানের ব্যবসা করতেন। বিগত ১মাস পুর্বে তিনি নিঁখোজ হয়েছিল। তার ছেলে প্রণয় দাশ বাদী হয়ে লোহাগাড়া থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরী(জিডি) দায়ের করেন। তারা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও  বাবাকে পায়নি। সর্বশেষে ৩৩দিনের মাথায় উপজেলার পদুয়া ফরিয়াদের কুলের পুর্ব এলাকায় গহীন জঙ্গলে ভগরতির খামারের পার্শ্বে পাহাড়ের উপরে গলায় ফাঁস অবস্থায় ঝুলন্ত অবস্থায় জনৈক এক ব্যক্তি তাঁকে দেখতে পান।
নিহতের ছেলে প্রণয় দাশ জানান, আমার বাবা ১মাস ধরে নিঁখোজ ছিল। এ ব্যাপারে লোহাগাড়া থানায় জিডি করেছি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেছি।আজকে জনৈক এক ব্যক্তি আমাকে খবর দিলে সাথে সাথে লোহাগাড়া থানা পুলিশকে অবহিত করি।সেই পাহাড়ের উপরে ঘটনাস্থলে গিয়ে আমার বাবার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পায়।
লোহাগাড়া থানার ওসি(তদন্ত) মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, নিহতের ছেলে প্রণয় আমাদের থানা পুলিশকে অবহিত করলে আমি, থানার এসআই মোজাম্মেল হক, এসআই সাইদুল ইসলাম ও সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্সদের সাথে নিয়ে গহীন জঙ্গল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করি। নিহতের মরদেহ রোদে,বৃষ্টিতে ভিজে তার শরীরের অর্ধেক অংশ বিকৃতি হয়ে গেছে। করোনার পর থেকে তিনি কিছুটা মানসিক ভাবে ভারসম্যহীন ছিল। মরদেহ  ময়নাতদন্তের  জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে ।
বিএনএ/  রায়হান সিকদার, ওজি