তিস্তার পানি ফের বিপৎসীমার ওপরে

বিএনএ, নীলফামারি : পাহাড়ি ঢলে ফের নীলফামারীতে ফের বিপৎসীমা অতিক্রম করেছে তিস্তার পানি। শনিবার রাত ৯টায় ডালিয়ায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে নদীর পারি বিপৎসীমার দুই সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। সেখানে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে বলে জানায় পানি উন্নয়ন বোর্ড।

আরো পড়ুন

বিমানের নতুন এমডি শফিউল আজিম

কাতার ফুটবল বিশ্বকাপে সেমিতে যাওয়ার লড়াই

পানি নিয়ন্ত্রণে ব্যারেজের ৪৪টি জল কপাট খুলে রেখেছে ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ। ফলে তিস্তা চরাঞ্চলের অনেক বসতবাড়িতে পানি উঠেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

শনিবার (৬ আগস্ট) রাত ১২টায় দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারেজ ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তার পানিপ্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫২ দশমিক ৬৫ সেন্টিমিটার, যা বিপৎসীমার দশমিক ৫ সেন্টিমিটার (স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ৬০ সেন্টিমিটার) ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

রাত ৯টায় তিস্তা ব্যারেজের ডালিয়া পয়েন্টে পানির প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫২ দশমিক ৬২ সেন্টিমিটার। অর্থাৎ বিপৎসীমার দশমিক ২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আসফাউদ্দৌলা বলেন, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের কারণে তিস্তার পানি বেড়েছে। তবে ৪৪টি গেট খুলে পানি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। রাতে তিস্তার পানি কমে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। তেমন ভয়ের কিছু নেই।

এর আগে গত ১ আগস্ট সোমবার উজানের ঢলে ব্যারাজ পয়েন্টে নদীর পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করে ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। ২ আগস্ট কিছুটা কমে ১৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিল। এসময় জেলার ডিমলা উপজেলার পূর্ব ছাতনাই, পশ্চিম ছাতনাই, টেপাখড়িবাড়ি, খগাখড়িবাড়ি, খালিশাচাপানী, ঝুনাগাছ চাপানী ও গয়াবাড়ি ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের চার সহস্রাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়ে।

বিএনএনিউজ/এইচ.এম।