Bnanews24.com
এক নজরে বিনোদন সব খবর সাহিত্য-সংস্কৃতি

না ফেরার দেশে ৭১ এর কণ্ঠযোদ্ধা ইন্দ্রমোহন রাজবংশী

না ফেরার দেশে ৭১ এর কণ্ঠযোদ্ধা ইন্দ্রমোহন রাজবংশী

বিএনএ ঢাকা: একুশে পদকপ্রাপ্ত লোকগানের শিল্পী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ইন্দ্রমোহন রাজবংশী আর নেই। বুধবার (৭ এপ্রিল) সকাল সোয়া ১০টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ)মারা গেছেন তিনি।

বিএসএমএমইউয়ের আইসিইউ প্রধান অধ্যাপক এ কে এম আখতারুজ্জামান জানান,করোনায় আক্রান্ত ইন্দ্রমোহন রাজবংশীকে গত ৪ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়।করোনা ভাইরাসের সঙ্গে উচ্চ রক্তচাপেও ভুগছিলেন এই শিল্পী। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেখানেই মারা যান তিনি।

ঢাকায় জন্ম নেয়া ইন্দ্রমোহন রাজবংশী লোক গানের জন্যই বিখ্যাত ছিলেন।একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী হিসেবে বিশেষ ভূমিকা রাখেন এই গায়ক। ক্যারিয়ারের শুরুতে ভাওয়াইয়া, ভাটিয়ালী, জারি, সারি, মুর্শিদি ইত্যাদি গান গেয়ে গ্রাম-বাংলায় মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন।পরবর্তীতে রবীন্দ্রনাথের গান গেয়েও সুনাম অর্জন করেন তিনি।

রাজবংশীর পরিবারের পাঁচ পুরুষ ধরে গান লেখার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তিনি সংগীত কলেজে লোকসংগীত বিভাগের প্রধান হিসেবেও কাজ করেছেন দীর্ঘদিন। চলচ্চিত্র, বেতার ও টেলিভিশনে অনেক গান করেছেন ইন্দ্রমোহন রাজবংশী।

১৯৬৭ সালে ‘চেনা অচেনা’ সিনেমার গানে কণ্ঠ দেওয়ার মাধ্যমে প্লেব্যাক শুরু করেন তিনি। গান লেখা, সুর করা ও গাওয়া ছাড়াও বিভিন্ন অঞ্চল থেকে লোকগান সংগ্রহ করতেন ইন্দ্রমোহন। গত ৫০ বছরে এক হাজার কবির লেখা কয়েক লাখ গান সংগ্রহ করেছেন তিনি। সংগীতে বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৮ সালে একুশে পদকও লাভ করেন এই শিল্পী।

ইন্দ্রমোহন রাজবংশীর স্ত্রী দীপ্তি রাজবংশী, পুত্র রবীন রাজবংশী ও মেয়ে প্রবাসীও লোকগানের সঙ্গে জড়িত।এদিকে,  ইন্দ্রমোহন রাজবংশীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনএনিউজ/আরকেসি