রনির দৌড় দেখে অবাক চিকিৎসকরা

বিএনএ ডেস্ক: আবু হেনা রনির শারীরিক অবস্থার খানিকটা উন্নতি হয়েছে। তার দৌড় দেখে বিষ্মিত চিকিৎসকরা। এ তথ্য জানিয়েছেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন।

আরো পড়ুন

কাতার ফুটবল বিশ্বকাপে সেমিতে যাওয়ার লড়াই

বাংলাদেশের সিরিজ জয়, আনন্দবাজার যা লিখেছে

গত কয়েকদিন রনির শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ শেষে ডা. সামন্ত লাল জানান, রনি আশঙ্কামুক্ত আছেন, অপেক্ষায় করছেন বাসায় ফেরার। তিনি বলেন, রনি হাঁটতে পারছেন কি না, জানতে চাইলে তিনি কেবিন থেকে বেরিয়ে করিডোরে গিয়ে দৌড় দেন।

রনির সহকারী সাদিক আল হাসান জানান, তিনি এখন মুখে খাবার খেতে পারছেন স্বাভাবিকভাবে। আছেন ফুরফুরে মেজাজে। চিকিৎসক, নার্সদের সঙ্গে ভাল সময় কাটাচ্ছেন তিনি। বাড়ি ফিরে একটু বিরতি নিয়ে আবার নতুন করে মঞ্চ কাঁপানোর পরিকল্পনা করছেন রনি।

ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, রনিকে শিগগিরই ছেড়ে দেয়া হবে। তিনি আবার মঞ্চে ফিরতে পারবেন কি না, জানতে চাইলে ডা. সেন বলেন, ‘তার মঞ্চে ফিরতে কোনো বাধা হবে না। যতটুকু ক্ষতি হয়েছে, আশা করছি সেটা তার পারফরম্যান্সে কোনো প্রভাব ফেলবে না।’

গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে গাজীপুর জেলা পুলিশ লাইনে মেট্রোপলিটন পুলিশের চতুর্থ বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে দগ্ধ হন আবু হেনা রনি ও আরও ৪ পুলিশ সদস্য।

দগ্ধদের প্রথমে স্থানীয় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। দগ্ধের মাত্রা বেশি হওয়ায় সেখান থেকে জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয় রনি ও জিল্লুর রহমানকে।

পরদিন ডা. সামন্ত লাল সেন জানিয়েছিলেন, আবু হেনা রনির ২ হাত, কান ও মুখের কিছু অংশসহ শরীরের ২৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে এবং পুলিশ সদস্য জিল্লুর রহমানের দগ্ধ হয়েছে ১৯ শতাংশ। তাদেরকে ড্রেসিংয়ের পর এইচডিইউতে রাখা হয়।

বিএনএ/এ আর