আগামী ৫ বছরে দেশে ১ হাজার সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট তৈরি-পলক

আগামী ৫ বছরে দেশে ১ হাজার সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট তৈরি-পলক

আইটি-আইসিটি এক নজরে সব খবর

ঢাকা :    বৈশ্বিক সাইবার নিরাপত্তা সূচকে ৭৩তম স্থান থেকে ৮ ধাপ এগিয়ে ৬৫তম স্থানে উন্নীত হয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, ভবিষ্যতে বাংলাদেশকে বিশ্বের সাইবার সিকিউরিটি সার্ভিস প্রোভাইডিং হাব হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এ লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যকরী পদক্ষেপের মাধ্যমে তরুণ মেধাবীদের তৈরি করা হবে বলে তিনি জানান।

 

প্রতিমন্ত্রী মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) আগারগাঁওস্থ আইসিটি টাওয়ারে আইডিয়া ফ্লোর মিলনায়তনে সাইবার সিকিউরিটি বিষয়ে সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসমূহের সক্ষমতা অর্জনের লক্ষ্যে আয়োজিত ‘জাতীয় সাইবার ড্রিল-২০২০’ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বিজিডি ই-গভ Cyber Incident Response Team (সার্ট) “ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০২০” উপলক্ষ্যে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

 

দেশের সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করতে সাইবার সিকিউরিটি অত্যন্ত জরুরি উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রীয় ও ব্যক্তিগত সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিতে আইসিটি বিভাগ কাজ করছে। তিনি বলেন, দেশের ব্যাংকিং, স্বাস্থ্য, সিভিল এভিয়েশনসহ বিভিন্ন সেক্টরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ডিজিটাল সিকিউরিটি এজেন্সির মাধ্যমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আগামী ৫ বছরে দেশে ১ হাজার সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট তৈরি করা হবে। এর মাধ্যমে সাইবার সিকিউরিটিতে বাংলাদেশের মেধাবী সাইবার নিরাপত্তা কর্মীরা বিশ্বে অবদান রাখার পাশাপাশি নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে দেশে বসেই বিপুল বৈদেশিক মুদ্রা আয় করবেন। তিনি বলেন, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে অবদান রাখার মতো আগামীতে বিশ্বকে সাইবার ঝুঁকিমুক্ত রাখবে বাংলাদেশ।

 

ডিজিটাল সিকিউরিটি এজেন্সি’র মহাপরিচালক মোঃ রেজাউল করিম এর সভাপতিত্বে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

 

উল্লেখ্য, ‘জাতীয় সাইবার ড্রিল ২০২০’ এ সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান, নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, বিশ্ববিদ্যালয়, প্রাইভেট কোম্পানি থেকে ও স্বতন্ত্রভাবে ২৩৩টি দলে এক হাজার জনের অধিক অংশগ্রহণ করে। দলবদ্ধ এই সাইবার ড্রিল প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার লাভ করে অনিমেষ খাসকেল এর নেতৃত্বে সিলিকন বিটস দ্বিতীয় মোঃ রাসেল ভূইয়ার নেতৃত্বে দ্যা ইনফিনিটি বাইটস এবং তৃতীয় মোঃ খতিব আল ফাহাদ এর নেতৃত্বে হেইমডাল।

 

পরে প্রতিমন্ত্রী বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *