Bnanews24.com
অপরাধ আদালত কভার রাজধানী সব খবর

আত্মহত্যায় প্ররোচনা: শারুনের বিরুদ্ধে মুনিয়ার ভাইয়ের মামলা

মুনিয়ার আত্মহত্যা : শারুনকে জিজ্ঞাসাবাদ

আদালত প্রতিবেদক(ঢাকা) : রাজধানীর গুলশানে তরুণী মোসারাত জাহান মুনিয়ার মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় জাতীয় সংসদের হুইপ শামসুল হক চৌধুরীর(চট্টগ্রামের পটিয়ার এমপি) ছেলে নাজমুল করিম চৌধুরী শারুনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা করেছেন মুনিয়ার (ভুক্তভোগী) ভাই আশিকুর রহমান সবুজ। রোববার ( ২ মে) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা দায়ের করেন।

উল্লেখ্য,সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর গুলশান-২ নম্বরের ১২০ নম্বর সড়কের একটি ফ্ল্যাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার তরুণীর নাম মোসারাত জাহান।তিনি রাজধানীর একটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।তার বাড়ি কুমিল্লা শহরে। তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুর রহমান। মেয়েটির পরিবার কুমিল্লায় থাকে। এখানে ফ্ল্যাটে তিনি একাই থাকতেন।

পুলিশ জানায়, মোসারাত জাহান রোববার তার বড় বোনকে ফোন করে বলেন, তিনি ঝামেলায় পড়েছেন। এ কথা শুনে তার বড় বোন সোমবার কুমিল্লা থেকে ঢাকায় আসেন। সন্ধ্যার দিকে ওই ফ্ল্যাটে যান তিনি। দরজায় ধাক্কাধাক্কি করলেও বোন দরজা খুলছিলেন না। এরও কিছুক্ষণ আগে থেকে বোনের ফোন বন্ধ পাচ্ছিলেন। পরে বাইরে থেকে ‘লক’ খুলে ঘরে ঢুকে বোনকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলতে দেখেন। পরে তিনি বাড়িওয়ালাকে বিষয়টি জানান। তখন পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

সোমবার দিবাগত রাত পৌনে একটার দিকে গুলশান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইমরান হোসেন মোসারাতের লাশের সুরতহাল করে তার লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রেখে যায়। পুলিশ সিসি ক্যামেরার ফুটেজ এবং মোসারাতের ব্যবহৃত ডিজিটাল ডিভাইসগুলো জব্দ করেছে।ঘটনায় ভুক্তভোগীর বোন নুসরাত জাহান গুলশান থানায় বাদী হয়ে আত্নহত্যা প্ররোচনার একটি মামলা করেন।

মামলায় বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবাহান আনভীর কে আসামি করা হয়।পরবর্তীতে মুনিয়ার সাথে হুইফ পুত্র শারুনসহ আরও কয়েকজনের ঘনিষ্ঠতার প্রাথমিক প্রমাণ পায় পুলিশ।

বিএনএনিউজ/ এসআইবি,এসজিএন