30 C
আবহাওয়া
৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ - জুন ৩, ২০২৩
Bnanews24.com
Home » পাকিস্তানের সেনাপ্রধান হলেন আসিম মু‌নির

পাকিস্তানের সেনাপ্রধান হলেন আসিম মু‌নির


বিএনএ, বিশ্বডেস্ক: পাকিস্তানের নতুন সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম মুনিরের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে সেনাপ্রধানের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন বিদায়ী সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) রাওয়ালপিন্ডির জেনারেল হেডকোয়ার্টারে আসিম মুনিরের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের ‘প্রতীকি পদমর্যাদামূলক ক্ষুদ্র লাঠি’ তুলে দেন জেনারেল বাজওয়া। এর মাধ্যমে তিনি দেশটির ১৭তম সেনাপ্রধান হলেন।

বিদায়ী সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বলেন, আমি নিশ্চিত সেনাপ্রধান হিসেবে আসিম মুনিরের নিয়োগ সেনাবাহিনী ও দেশের জন্য ইতিবাচক হবে। পাকিস্তান ফ্রন্টিয়ার কোর, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই, জনসংযোগ বিভাগ আইএসপিআর ও সেনাসদরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্বপালনকারী আসিম মুনীর কেবল দক্ষ সৈনিক ও কমান্ডার নন, তিনি একজন হাফেজ-এ-কুরআন। আমার বিশ্বাস আসিম মুনিরের অধীনে সেনাবাহিনী পাকিস্তানকে আরও বেশি সুরক্ষিত রাখতে পারবে।

পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ গত সপ্তাহে নতুন সেনাপ্রধান হিসেবে আসিম মুনীরকে মনোনীত করেন। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর রীতির খানিকটা ব্যত্যয় ঘটিয়ে সেনাপ্রধান নিয়োগ করা হলো জেনারেল বাজওয়ার ঘনিষ্ঠ ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরোধী হিসেবে পরিচিত এ কর্মকর্তাকে।

চাকরির বয়স অনুযায়ী আসিম মুনীর গত ২৭ নভেম্বর রোববার অবসরে যাবার কথা ছিল। বিষয়টিকে পাশ কাটাতে গত সপ্তাহে তাকে তাৎক্ষণিকভাবে চার-তারকা জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি দিয়ে চাকরির মেয়াদ বাড়ানো হয়। রাওয়ালপিন্ডিতে আজকের আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে তাকে সেনাপ্রধান নিয়োগের পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলো।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর অফিসার্স ট্রেইনিং স্কুলের মাধ্যমে সৈনিক জীবন শুরু করেন আসিম মুনীর। সীমান্ত রক্ষায় নিয়োজিত ফ্রন্টিয়ার ফোর্স রেজিমেন্টে তিনি কমিশন প্রাপ্ত হন। বিদায়ী সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া এক্স কোরের কমান্ডার থাকাকালে তার অধীনে ব্রিগেডিয়ার হিসেবে উত্তরাঞ্চলীয় ফোর্সের কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন আসিম মুনীর। সেখান থেকেই দুইজনের ঘনিষ্ঠতা শুরু।

বাজওয়া সেনাপ্রধান হওয়ার পর আসিম মুনীরকে ২০১৭ সালের শুরুতে মিলিটারি ইন্টেলিজেন্সের ডিরেক্টর পদে নিয়োগ দেন। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তাকে তিন-তারকা জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি দেয়া হয়। পরের মাসেই তাকে আইএসআই প্রধান পদে নিয়োগ করা হয়। তবে আট মাসের মাথায় তাকে ওই পদ থেকে সরিয়ে গুজরানওয়ালা কোরের কমান্ডার নিয়োগ করেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ওই পদে দুই বছর দায়িত্ব পালনের পর তাকে কোয়ার্টারমাস্টার জেনারেল হিসেবে সেনাসদরে ফিরিয়ে আনা হয়। এরপর তিনি সেনাপ্রধান হলেন।

বিএনএ/এমএফ

Total Viewed and Shared : 14 


শিরোনাম বিএনএ