29 C
আবহাওয়া
৬:৩৫ পূর্বাহ্ণ - জুন ১৮, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » নয়াদিল্লিতে পুলিশ-কৃষক ব্যাপক সংঘর্ষ

নয়াদিল্লিতে পুলিশ-কৃষক ব্যাপক সংঘর্ষ

নয়াদিল্লিতে পুলিশ-কৃষক ব্যাপক সংঘর্ষ

বিএনএ,বিশ্ব ডেস্ক: ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবসে নয়াদিল্লিতে আন্দোলনরত কৃষকদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) সকাল থেকেই সরকারের কৃষি আইনের প্রতিবাদে ট্রাক্টর নিয়ে র‌্যালি বের করে কৃষকরা।সকাল থেকেই দিল্লির অভিমুখে যাত্রা শুরু করে তারা।সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ সিংঘু ও টিকরিতে ব্যারিকেড ভেঙে আউটার রিং রোডের দিকে এগিয়ে যায় কৃষকরা।কেউবা পতাকা হাতে হেঁটে মিছিল নিয়ে এগিয়ে যান।কেউবা আবার ট্রাক্টর নিয়েই ঢুকে পড়েন রাজধানীতে।কৃষকদের র‌্যালিতে বাধা দেয়ায় পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এক পর্যায়ে টিয়ার শেল নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জ করে পুলিশ।কিন্তু প্রতিবাদী কৃষকদের  নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি পুলিশ।তিন সীমানায় সব ব্যারিকেড ভেঙে চুরমার হয়ে যায়।পথ পাল্টে লালকেল্লায় গিয়ে কৃষকদের মধ্যে থেকে আওয়াজ ওঠে ‘অকুপাই দিল্লি’।

কিসান প্যারেড’ নামে কৃষকদের এই ট্রাক্টর র‌্যালি দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত হওয়ার অনুমতি থাকলেও নির্ধারিত সময়ের আগেই র‌্যালি বের করায় সকাল থেকেই থেমে থেমে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

পুলিশের ঘোষণা ছিল, মঙ্গলবার কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিল নির্দিষ্ট তিনটি রুটে গিয়ে আবার উৎসস্থলে ফিরে আসবে।রুট নির্ধারণে কৃষকদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে রোববার বৈঠক করে প্রশাসন।স্থির হয় গাজিপুর, সিঙ্ঘু, চিল্লা ও তিকরি এলাকা দিয়ে দিল্লিতে ঢুকবে ট্রাক্টর র‍্যালি।তবে সেটা হবে বেলা ১২টার দিকে প্রজাতন্ত্র দিবসের মূল অনুষ্ঠান সম্পন্ন হওয়ার পর।কিন্তু বাস্তবে ঘটল তার উল্টোটা।পুলিশের বাধা কেউ মানেননি।পুলিশের বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে সকাল ৮টা না বাজতেই রাজপথের দখল নেয় কৃষকরা। ভেঙে ফেলে পুলিশের ব্যারিকেড।তাই নিয়ে উত্তপ্ত হয় দিল্লির নয়ডা মোড়, আইটিও মোড়, এসবিটি এলাকা।

সে সময় ট্রাক্টর উল্টে মারা যান এক কৃষক।পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ চলাকালীন ট্র্যাক্টরটি উল্টে তার মৃত্যু হয় বলে দেশটির সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে।তবে কৃষকদের অভিযোগ, দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গে প্রবেশের  সময় তাদের পথ আটকায় পুলিশ।এমনকি গুলিও চালানো হয় বলে অভিযোগ করেন তারা।

বিক্ষোভকারীদের দাবি,ট্র্যাক্টরটিতে পুলিশের গুলি লাগলে সেটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়।তার নীচে চাপা পড়ে মৃত্যু হয় ওই কৃষকের।

সংবাদ মাধ্যমগুলো জানায়,এই ঘটনায় আন্দোলনকারীদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।এরপরই ব্যারিকেড ভেঙে লালকেল্লায় ঢুকে পড়েন তারা।সেখানে একাধিক স্তম্ভের মাথায় কৃষক সংগঠনের পতাকা ঝুলিয়ে দেন।কেল্লার সামনের খুঁটি বেয়ে উঠে পতাকা টাঙিয়ে দিতে দেখা যায় আন্দোলনকারীদের।

ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবসে বিতর্কিত তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে এভাবেই অবরুদ্ধ করা হয় রাজধানী দিল্লি।

বিএনএনিউজ/আরকেসি

Loading


শিরোনাম বিএনএ