28 C
আবহাওয়া
৩:৫৮ অপরাহ্ণ - জুন ২০, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » আনোয়ারায় অর্থপ্রতিমন্ত্রী বনাম সাবেক ভূমিমন্ত্রীর শাসন !

আনোয়ারায় অর্থপ্রতিমন্ত্রী বনাম সাবেক ভূমিমন্ত্রীর শাসন !


বিএনএ, ডেস্ক : চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। তিনি একাদশ সংসদে ভূমিমন্ত্রী ছিলেন, তারও আগে ভূমি প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। তার আমলে ভূমি সংক্রান্ত বিষয়ে আমুল সংস্কার প্রশংসার দাবি রাখে। কিন্তু দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের হলফনামায় যুক্তরাষ্ট্রে বিলাশ বহুল ২৬০টি বাড়ির তথ্য গোপন করেছে বলে অভিযোগ করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ- টিআইবি। যা দেশ-বিদেশে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার জন্ম দেয়।

YouTube player

অনেকে মনে করেন রাজনীতিতে ক্লিন ইমেজ থাকলেও যুক্তরাষ্ট্রে বিপুল সম্পদ কান্ডের কারণে এবার মন্ত্রী সভায় ঠাঁই পাননি আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং ৪ বারের সংসদ সদস্য প্রয়াত আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর সন্তান সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। এখানে শেষ নয়- অর্থপ্রতিমন্ত্রী হিসাবে স্থান পেয়েছেন একই সংসদীয় এলাকার আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, পূর্ব পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত আতাউর রহমান খান কায়সারের কন্যা সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ওয়াসিকা আয়শা খান।

তিনি নতুন মন্ত্রী হওয়ার পর সাইফুজ্জামান জাবেদের বিরোধী গ্রুপ সক্রিয় হয় এবং তারা ওয়াসিকা আয়শা খানকে গণসংবর্ধনা দেয়। প্রশাসন থেকেও তাকে বেশ প্রটোকল দেয়। বিষয়টি স্বাভাবিকভাবে নেননি সাবেক ভূমিমন্ত্রী। তার প্রতিফলন দেখা যায় গত ২৯ মার্চ শুক্রবার উপজেলা পরিষদ আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে । সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, তাঁর এলাকায় কোনো দ্বৈত শাসন চলবে না। এই এলাকার প্রশাসনকে তিনি দিকনির্দেশনা দেবেন।

এতে নতুন মন্ত্রিসভায় সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য ওয়াসিকা আয়শা খান অর্থ প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পর আনোয়ারা-কর্ণফুলী আসনে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে পৃথক মেরুকরণ স্পষ্ট হয়ে গেছে। সাইফুজ্জামান চৌধুরী সরাসরি কারও নাম উল্লেখ না করলেও অর্থ প্রতিমন্ত্রী ও তাঁর অনুসারীদের উদ্দেশ্যে এই বক্তব্য দিয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মনে করছেন।

সাবেক এই ভূমিমন্ত্রী বলেন, এই এলাকার প্রশাসনকে আমি দিক নির্দেশনা দেব। এলাকায় কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি করতে হলে এক সপ্তাহ আগে প্রশাসন থেকে অনুমতি নিতে হবে আয়োজকদের। অনুমতি না নিয়ে কোনো সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না।’

গতকাল শুক্রবার দুপুরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ পরিবারকে টিন ও নগদ অর্থ বিতরণকালে এসব কথা বলেন তিনি। তাঁর এই বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। আনোয়ারা উপজেলা প্রশাসন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী আরও বলেন, ‘মানুষের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি আমি। জনগণকে কীভাবে শান্তিতে রাখতে হয়, সেই বিষয়টি দেখার দায়িত্ব আমার। মাদক ব্যবসা, ভূমিদস্যুতার সঙ্গে জড়িতদের একসময় রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে রেখেছিলাম। সেই দুর্বৃত্তরা আবারও মাঠে ফিরেছে। তারা যেন কোনো অপকর্ম করে বেড়াতে না পারে, সেদিকে সতর্ক থাকতে হবে।’

৭ মার্চ সকালে কর্ণফুলী উপজেলায়, বিকালে আনোয়ারা উপজেলায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এবং ২৩ মার্চ আনোয়ারা উপজেলার পারকিতে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন ওয়াসিকা আয়শা খান। তিনি একটি সভায় বলেছিলেন, ‘রাজনীতিতে শেষ বলে কিছু নেই। যেখানে শেষ হয়েছে, সেখান থেকে শুরু হবে। আমি আনোয়ারা-কর্ণফুলীর বঞ্চিত নেতা–কর্মীদের নিয়েই এগিয়ে যাব।

উপজেলা নির্বাচনকে সামনে নিয়ে আনোয়ারার রাজনীতিতে দুইগ্রুপ সক্রিয়। দীর্ঘদিন যারা কোনঠাসা ছিলেন, কমিটিতে স্থান পায়নি, তারা নতুন অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা খানকে সামনে নিয়ে জেগে উঠেছে। ৪ বারের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের একক সাম্রাজ্যে টান পড়েছে। যার ফলশ্রুতিতে ক্ষোভ ঝাড়লেন সাবেক এই ভূমিমন্ত্রী।

বিএনএ/ শামীমা চৌধুরী শাম্মী/এইচমুন্নী 

 

Loading


শিরোনাম বিএনএ