মানবপাচার রোধে ডিসিদের সহযোগিতা চাইলেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

বিএনএ: মানুষকে ভুলিয়ে-ভালিয়ে পাচার করা হয় এমন অভিযোগের বিষয়ে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, আমিতো আপনার গ্রামে নেই। আপনি তো আছেন, আমি অনুরোধ জানাবো এ ধরনের দালাল চক্র গরিবদের ভুলিয়ে প্রতারিত করলে সেক্ষেত্রে আপনারা আপনাদের ভূমিকা পালন করবেন। তাদেরকে কাঠগড়ায় দাঁড় করাবেন। এতে প্রতারণা এমনিতেই কমে যাবে।

আরো পড়ুন

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের তৃতীয় ও শেষ দিনের দ্বিতীয় অধিবেশন শেষে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, দালাল চক্র কমিয়ে আনতে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকেও পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে ডিসিদের সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দিতে অনুরোধ করেছেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, বিদেশে গিয়ে বিভিন্ন কারণে পাসপোর্ট হারিয়ে ফেললে পরে নতুন করে ইস্যু করার সময় প্রবাসীরা সঠিক তথ্য দেন না। তথ্য ভুল থাকলেও ফিঙ্গার প্রিন্টে ধরা পড়ে যায়। এখন এ বিষয়ে কী করা যায় সেটা নিয়ে ভাবছি। প্রবাসীরা কিন্তু দেশের জন্য অনেক কিছু সেক্রিফাইস করেন। আমাদের সবুজ পাসপোর্টের আন্তর্জাতিক মান ধরে রাখতে হবে। বুঝেশুনে আমাদের সমন্বয় করতে হবে।

জনশক্তি রফতানি নিয়ে সমস্যা আছে বলে স্বীকার করে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, বিভিন্ন পর্যায়ে তা সমাধানের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মালয়েশিয়ায় লোক পাঠাতে যে বেশি টাকা নেয়া হচ্ছে, তাও নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে বলে জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, মালয়েশিয়া যেতে দালালরা আড়াই থেকে তিন লাখ নয় বাস্তবে নেয়া হচ্ছে চার লাখ টাকা। মন্ত্রণালয় সব বিষয়ে খবর রাখে দাবি করে তিনি বলেন, এ বিষয়টি সমাধান করার জন্য তাদের (মালয়েশিয়ার) মন্ত্রী আসছেন আগামী সপ্তাহে। দেখি কী ফলাফল বের করতে পারি। মালয়েশিয়ার বিষয়ে আরেকটা কথা বলবো, অনেক সময় লোক পাঠালে অনেক এডজাস্টমেন্ট করতে হয়।

বিএনএনিউজ/এ আর