সহকারী জজ পরীক্ষায় ১১ তম কুবির তাফসীর

বিএনএ, কুবি: বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশন সচিবালয়ের (বিজেএস) অধীন সহকারী জজ নিয়োগের পঞ্চদশ বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিসের সুপারিশপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) শিক্ষার্থী তাফসীর হোসেন সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) প্রকাশিত বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস কমিশন সচিবালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (জেলা ও দায়রা জজ) শরীফ এ এম রেজা জাকের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ থেকে সুপারিশপ্রাপ্ত তাফসীর হোসেনের মেধাক্রম হল ১১তম।
এবারে মোট ১০৩ জন সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, তাফসীর হোসেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ২য় ব্যাচ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী৷ তার এ অর্জনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

অনুভূতি প্রকাশ করে তাফসীর হোসেন বলেন, প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টির শেষে নীঁড়হারা কোন পাখি এক টুকরো আশ্রয়স্থল খুঁজে পেলে যেমন অনুভূতি হয়। প্রচন্ড মানসিক পীড়া এবং ঝড়-ঝঞ্ঝা অতিক্রম করে টিকে থাকার লড়াইয়ে সহকারী জজ হিসেবে সুপারিশপ্রাপ্ত হওয়ার অনুভূতিটাও সম্ভবত আমার কাছে সেই আশ্রয় খুঁজে পাওয়া পাখির মতোই। হঠাৎ করে আম্মুর মৃত্যুতে আমি যেখানে পুরো এক বছর পড়াশোনার বাহিরে ছিলাম এবং পড়াশোনা না করার সিদ্ধান্ত পুরোপুরি নিয়ে ফেলেছিলাম। সেই জায়গাটা থেকে নিজেকে ফিরিয়ে এনে নিজেকে জয়ী ঘোষণা করতে পারার অনুভূতিটা ঠিক কি হতে পারে আমার জানা নেই। জীবনে প্রচণ্ড পরিশ্রম, সততা, আত্মবিশ্বাস আপনাকে নিমিষেই সফলতার সন্ধান দিতে পারে। আমার এই অর্জনের পিছনে আমার প্রিয় আইন বিভাগ,আমার সম্মানিত শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ,আমার কতিপয় প্রিয় বন্ধুদের অবদান ভাষায় প্রকাশ করার মতো না। আমি তাদের সবার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং আমার জন্যে সবাই দোয়া করবেন।

এ বিষয়ে আইন বিভাগের প্রধান মো. আবু বকর ছিদ্দিক বলেন, এই অর্জনে আমরা খুবই আনন্দিত। পুরো আইন পরিবার তাফসীরের এমন সামল্যে গর্বিত। সে আমাদের ২য় ব্যাচের শিক্ষার্থী। এভাবে আইন বিভাগ এগিয়ে যাবে। ভবিষ্যতে আইন বিভাগের আরও সফলতা কামনা করি।

বিএনএ/এমএফ