দেশ ও জাতির কল্যাণ ও বিশ্বের শান্তি কামনায় বিশ্ব ইজতেমা সম্পন্ন

বিএনএ, ঢাকা: মহান আল্লাহতায়ালার প্রশংসা ও নবীজী(সা.) প্রতি দরুদ শরীফ পাঠের মধ্যে দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দফার আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে মোনাজাতে দেশ ও জাতির কল্যাণ, উত্তোরোত্তর উন্নতি, সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনা, আল্লাহতায়ালার যাবতীয় আযাব ও অসন্তুষ্টি হতে পানাহ্, সমস্ত রকমের বালা-মুছীবতের কষ্ট হতে আল্লাহর নিকট আশ্রয় চাওয়া হয়। বিশ্বের দেশে দেশে নিপীড়িত ও নির্যাতিত এবং অভাবগ্রস্ত মানুষের জন্য আল্লাহতায়ালার বিশেষ রহমত কামনা করা হয়।

রোববার (২২ জানুয়ারি) মধ্যাহেৃ টঙ্গীর তুরাগ তীরে ইজতেমা এলাকা ও যতদূর মাইকে শোনা যায় সেখানে অবস্থান নেয়া সকল বয়সের লাখো লাখো নারী পুরুষ মোনাজাতে অংশ নেন। অনেকে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন মহান রব্বুল আলামীনের নিকট ক্ষমা ও নৈকট্য লাভের আশায়। জ্ঞাত ও অজ্ঞাত কৃত অপরাধের জন্য আল্লাহর কাছে ক্ষমা চান।

তাবলীগ জামাতের কাকরাইলের শুরা সদস্য এবং বাংলাদেশের মাওলানা সাদপন্থিদের মূল সমন্বয়ক সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা সা’দের বড় ছেলে ইউসুফ বিন সা’দ কান্ধলভী।

দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ভোর থেকেই রাজধানীর আবুদল্লাহপুর, উত্তরা, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে মানুষের ঢল নামে। আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বাস, ট্রাক, কার, মাইক্রোবাস, ট্রেন, লঞ্চে করে এসে টঙ্গীতে পৌঁছে অবস্থান নিতে শুরু করেন। রাজধানীসহ আশপাশের এলাকার লোকজন শীত আর কুয়াশা উপেক্ষা করে ভোর থেকে টঙ্গীর উদ্দেশ্য রওয়ানা হন ।

ইজতেমার মাঠে যাদের জায়গা হয়নি, আশপাশের বাসাবাড়ি, ভবন, ভবনের ছাদ কিংবা করিডোর, সড়কের পাশে ফুটপাতে এমনকি গাছতলায় অবস্থান নিয়েছেন তারা। বেডশিট, পত্রিকা, পাটি, চট, জায়নামাজ, পলিথিন বিছিয়ে অনেকে বসে পড়েন রাস্তায়।

বিএনএনিউজ২৪, এসজিএন