মোদিকে নিয়ে বিবিসির তথ্যচিত্র ভারত প্রচার বন্ধ

বিএনএ: ভারতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে বিবিসির করা তথ্যচিত্র ‘ইন্ডিয়া: দ্য মোদি কোয়েশ্চেন’ এর প্রচার বন্ধ করতে ইউটিউবকে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সরকার।

আরো পড়ুন

এছাড়া এ সম্পর্কিত অন্তত ৫০টি টুইট, যেখানে ওই তথ্যচিত্রের ‘লিংক’ দেয়া হয়েছে, সেগুলোও ব্লক করতে টুইটারকে নির্দেশ দিয়েছে ভারত সরকার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানায়, শুক্রবার আইটি নীতিমালা, ২০২১-এর অধীনে জরুরি ক্ষমতা ব্যবহার করে ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব অপূর্ব চন্দ্র এই নির্দেশ জারি করেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, দেশটির পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র এবং তথ্য ও সম্প্রচারসহ বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তথ্যচিত্রটি যাচাই করে দেখেছেন। তাদের মতে, এই তথ্যচিত্র সুপ্রিম কোর্টের কর্তৃত্ব ও বিশ্বাসযোগ্যতার উপর সন্দেহ প্রকাশ এবং ভারতীয় বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভাজন তৈরির একটি প্রচেষ্টা। তথ্যচিত্রে ভারতে বিদেশি সরকারের ক্রিয়াকলাপ সম্পর্কে অপ্রমাণিত অভিযোগ করা হয়েছে বলেও জানান তারা।

তথ্যচিত্রটি ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতাকে ক্ষুণ্ন করছে এবং এটি বিদেশি রাষ্ট্রের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের পাশাপাশি দেশের অভ্যন্তরে জনশৃঙ্খলাকে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে বলে তারা দাবি করেন।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি গত বৃহস্পতিবার বিবিসির ওই তথ্যচিত্রকে একটি ‘প্রপাগান্ডা কন্টেন্ট’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তার মতে, তথ্যচিত্রটি বস্তুনিষ্ঠ নয় এবং এতে ঔপনিবেশিক মানসিকতার প্রতিফলন পাওয়া যায়।

দুই পর্বের বিবিসির ওই তথ্যচিত্রে ২০০২ সালের গুজরাট দাঙ্গার সঙ্গে সম্পর্কিত কয়েকটি দিক নিয়ে তদন্ত করা হয়, সেসময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন।

বিএনএনিউজ/এ আর