29 C
আবহাওয়া
১২:৫১ পূর্বাহ্ণ - জুলাই ১৬, ২০২৪
Bnanews24.com
Home » চট্টগ্রামে প্রথমদিনে সাড়ে তিনশো মেডিকেল শিক্ষার্থীর টিকাগ্রহণ

চট্টগ্রামে প্রথমদিনে সাড়ে তিনশো মেডিকেল শিক্ষার্থীর টিকাগ্রহণ

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ

বিএনএ,চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার মধ্য দিয়ে চট্টগ্রামে আবারও শুরু হয়েছে করোনার টিকাদান কার্যক্রম। প্রথম দিনে চমেকের ৩য়, ৪র্থ বর্ষ বিডিএস ওপঞ্চম বর্ষ এমবিবিএসের সাড়ে তিন শতাধিক শিক্ষার্থীকে এই টিকা দেওয়া হয়।

শনিবার (১৯ জুন) চমেকের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের টিউটোরিয়াল কক্ষে এই কার্যক্রম শুরু হয়। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. শাহেনা আক্তার টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

এসময় তিনি বলেন, আগে ফ্রন্টলাইনাদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। পাশাপাশি মেডিকেল শিক্ষার্থী, বিশেষ করে শেষ বর্ষে যারা আছেন, তাদের টিকা দিয়ে সুরক্ষিত করতে হবে। তারা ইন্টার্ন শেষে বিভিন্ন হাসপাতালে মানুষের সেবা দেবেন। এছাড়া পর্যায়ক্রমে চট্টগ্রামের প্রায় ৫ হাজারের মতো মেডিকেল ও ডেন্টাল শিক্ষার্থীকে এ টিকার আওতায় আনা হবে।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম বিভাগের ৫ জেলার জন্য মোট ১ লাখ ১৪ হাজার ডোজ টিকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে চট্টগ্রাম জেলার জন্য ৯১ হাজার ২০০ ডোজ, কক্সবাজার জেলার জন্য ১০ হাজার ৮০০ ডোজ, রাঙ্গামাটি জেলার জন্য ৪ হাজার ৮০০ ডোজ, খাগড়াছড়ি জেলার জন্য ৩ হাজার ৬০০ ডোজ এবং বান্দরবান জেলার জন্য ৩ হাজার ৬০০ ডোজ টিকা বরাদ্দ দেওয়া হয়।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, চট্টগ্রামে টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন ৫ লাখ ৪২ হাজার ২৭৪ জন। এদের মধ্যে প্রথম ডোজের টিকা গ্রহণ করেছেন ৪ লাখ ৫৩ হাজার ৭৬০ জন। অর্থাৎ এখনও প্রথম ডোজের টিকা পায়নি ৮৮ হাজার ৫১৪ জন। বর্তমানে প্রথম ডোজের টিকা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। ইতোমধ্যে প্রথম ডোজ নেওয়ার পর দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৭৫ জন। অর্থাৎ এখনও দ্বিতীয় ডোজের টিকা পায়নি ১ লাখ ১৫ হাজার ৬৮৫ জন।

সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি জানান, চীনের তৈরি সিনোফার্মের ৯১ হাজার ২০০ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন পাওয়ার ভিত্তিতে শনিবার থেকে আবারও টিকা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। টিকা প্রদান কার্যক্রমের জন্য স্বাস্থ্য বিভাগ কেবল চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে নির্ধারণ করেছে। প্রথমদিনে মেডিকেল শিক্ষার্থীদেরকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এবার রাজধানী ঢাকা বাদে প্রত্যেক জেলায় ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য কেবল একটি মাত্র কেন্দ্র থাকবে। যে জেলায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল রয়েছে সেখানে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে, যে জেলায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নেই সেখানে সদর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে এ টিকা দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামে গত ৩১ জানুয়ারি প্রথম দফায় অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ৪ লাখ ৫৬ হাজার ডোজ করোনার টিকা আসে। গত ৯ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় আরও ৩ লাখ ৬ হাজার ডোজ টিকা আসে। সর্বশেষ শুক্রবার আসে ৯১ হাজার ২০০ ডোজ টিকা।

বিএনএনিউজ/মনির

Loading


শিরোনাম বিএনএ