bnanews24.com
মারা গেলেন সি. আর দত্ত বীর উত্তম

যুক্তরাষ্ট্রে মারা গেলেন সি. আর দত্ত বীর উত্তম

বিএনএ, ঢাকা: ১৯৭১সালে  মুক্তিযুদ্ধকালীন ৪নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার মেজর জেনারেল (অব:) সি. আর দত্ত(৯৩) বীর উত্তম মারা গেছেন।

মঙ্গলবার(২৫ আগসট) সকাল ৯ টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তিনি ছিলেন বাংলাদেশ রাইফেলসের প্রথম মহা-পরিচালক।

তিনি বার্ধক্যজনিত জটিলতাসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় তার মেয়ের বাসায় ছিলেন।
জানা গেছে, গত ২০ আগষ্ট বাথরুমে জেনারেল দত্ত পড়ে যান, এতে তার পা ভেঙ্গে যায়। এরপর জেনারেল দত্তকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তাঁর শারিরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটতে থাকে। এরপর জেনারেল দত্তকে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে তাঁর শারিরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটতে থাকে।

চিত্ত রঞ্জন দত্তের জন্ম ১৯২৭ সালের ১ জানুয়ারি আসামের শিলংয়ে। তার পৈতৃক বাড়ি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার মিরাশি গ্রামে। তার বাবার নাম উপেন্দ্র চন্দ্র দত্ত এবং মায়ের নাম লাবণ্য প্রভা দত্ত। শিলংয়ের লাবান গভর্নমেন্ট হাইস্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছিলেন। পরবর্তীকালে বাবা চাকরি থেকে অবসর নিয়ে হবিগঞ্জে এসে স্থায়ী বসবাস শুরু করেন। হবিগঞ্জ গভর্নমেন্ট হাই স্কুল থেকে ১৯৪৪ সালে তিনি মাধ্যমিক পাস করেন। পরবর্তীতে কলকাতার আশুতোষ কলেজে বিজ্ঞান শাখায় ভর্তি হয়ে ছাত্রাবাসে থাকা শুরু করেন। পরে খুলনার দৌলতপুর কলেজে বিজ্ঞান শাখায় ভর্তি হন। পরে এই কলেজ থেকেই বিএসসি পাস করেন।

চিত্ত রঞ্জন দত্ত ১৯৫১ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। কিছুদিন পর ‘সেকেন্ড লেফটেনেন্ট’ পদে কমিশন পান। ১৯৬৫ সালে সৈনিক জীবনে প্রথম যুদ্ধে লড়েন তিনি ।১৯৬৫ সালের পাক-ভারত যুদ্ধে পাকিস্তানের হয়ে আসালংয়ে একটা কোম্পানির কমান্ডার হিসেবে যুদ্ধ করেন তিনি।

১৯৭৭ সালে মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেন। ১৯৭৯ সালে বি আর টি সির চেয়ারম্যান হিসেবে কিছুদিন দায়িত্ব পালনের পর ১৯৮২ সালে তিনি পুনরায় মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন। ১৯৮৪ সালে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। বাসস

আরও পড়ুন

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ পর্ব : ১৩৮

showkat osman

ঢাকা-১০ আসন শুন্য ঘোষণা

RumoChy Chy

নিয়ম রক্ষার চতুর্থ অধিবেশন শুরু, চলবে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত

bnanews24