bnanews24.com
মরার আবার জাত কি

‘মরার আবার জাত কি’?

চট্টগ্রাম : বাংলা কথা সাহিত্যে অপরাজেয় কথা শিল্পী শরৎচন্দ্র চট্রোপধ্যায়।তার অমর উপন্যাস ‘শ্রীকান্ত’ পাঠ করেনি, এমন শিক্ষিত লোক কমই আছে।শ্রীকান্ত উপন্যাসের চিরকালের একটি মানবিক বাক্যটি মানব গোষ্ঠীর পরম আকর।

প্রায় একশত বছর আগে  শরৎচন্দ্র চট্রোপধ্যায় লিখেছিলেন, মরার আবার জাত কি? করোনা মহামারিকালে এমন বাক্যটি মানসপটে ভেসে ওঠেছে। চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন হিন্দু সম্প্রদায়ের এক ব্যক্তি। তাকে সৎকারে হিন্দু সম্প্রদায়ের কেউ এগিয়ে আসেনি।

মুসলিম সম্প্রদায়ের স্বেচ্ছাসেবকদের একটি দল তাকে দাহ করার জন্য নিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গোপসাগর লাগোয়া চট্টগ্রামের ফল্যাতলী জেলেপাড়া এলাকা থেকে ছবিটি তুলেছেন বাচ্চু বডুয়া।

প্রসঙ্গত: প্রতিবেশী দেশ ভারতের মুম্বাইয়ে মালাডে পিলে চমকে দেয়ার মতো ঘটনার জন্ম দিয়েছে সেখানকার কথিত মুসলমানরা। গত ২ মার্চ শ্বাসকষ্ট নিয়ে যোগীশ্বরী হাসপাতালে মারা যান এক মুসলিম বৃদ্ধ। তাকে কবরস্থ করতে গ্রামে নেয়া হলে স্থানীয় মুসলিম কমিউনিটি তাকে কবরস্থ করতে অস্বীকার করে। স্বজনরা মরদেহ বাড়িতে রেখে গণ্যমান্য ব্যক্তি, পুরসভা (পৌরসভা)’র কর্তাদের কাছে গিয়ে কোন সমাধান পায়নি। ওই মুসলিম বৃদ্ধার মরদেহের সমাধি হয়নি। তার স্থান হয়েছে  শ্মশানে! স্বজনরা   মরদেহ থেকে ছড়িয়ে পড়া উৎকট দুর্গন্ধ থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয়  হিন্দু সৎকার সমিতির দারস্থ হয়। তারা শ্নাশানে দাহ করার অনুমতি দেয়। অবশেষে স্বজনরা ইসলামের অনুসারি মুসলমানকে শ্মশানে দাহ করতে বাধ্য হয়েছে!

বিএনএ/এসজিএন

আরও পড়ুন

কবরস্থান থেকে ২২টি কঙ্কাল চুরি

Jishan Islam

বালিশ কান্ডও যেখানে হার মানল

RumoChy Chy

কুকুরের পেটে নবজাতক

JewelBarua