bnanews24.com
ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে কোভিড-১৯ কেয়ার সেন্টারে আগুন, মৃত ৯

ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে কোভিড-১৯ কেয়ার সেন্টারে আগুন, মৃত ৯

বিএনএ, বিশ্ব ডেস্ক : ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের (কোভিড-১৯) কেয়ার সেন্টারে(আবাসিক হোটেল) এক অগ্নিকাণ্ডে কমপক্ষে ৯ জনের মৃত্যু ঘটেছে।রোববার(৯আগস্ট) ভোরে এই আগুনের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় কেয়ার সেন্টারটিতে ৩০জন করোনা আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন বলে এনটিভির খবরে বলা হয়েছে।

দমকল কর্মীরা জানান, ভোর ৫টায় আগুনের সূত্রপাত হয় এবং ত্রিশ মিনিটের মধ্যে তা নিয়ন্ত্রণে আসে। নিচতলায় সৃষ্ঠ আগুন খুব দ্রুত দোতলা ও তিনতলায় ছড়িয়ে পড়ে।এ সময় ২জন লোক আগুন থেকে বাঁচার জন্য উপর থেকে লাফিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হন।তা ছাড়া আরো ২০-২২জন নানাভাবে আহত হয়েছেন।

হাসপাতালে কেউ কেউ কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশনে ছিলেন।

কৃষ্ণ জেলার কালেক্টর মোহাম্মদ ইমতিয়াজ সাংবাদিকদের  বলেন, খুব সম্ভবত বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। তবু বিষয়টি তদন্ত করা হবে।আগুন লাগার পরপরই দমকল কর্মীরা দ্রুত ২০জনকে হাসপাতাল থেকে নামিয়ে আনেন।

রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী ওয়াইএস জগ মোহন রেড্ডি হাসপাতালে আগুনে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন। রাজ্য সরকার আগুনে নিহতের প্রত্যেক পরিবারকে ৫০লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার ভোররাতে আগুন লাগে গুজরাটের আহমেদাবাদের নভরঙ্গপুরার শ্রে হাসপাতালে। বেসরকারি এই হাসপাতালকে করোনা হাসপাতাল হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে। ওই ঘটনায় হাসপাতালে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে থাকা আট করোনা রোগীর মৃত্যু হয়।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালের একটি এক্সটেনশান ভবনে আগুনে ৫জন  পুড়ে মারা যান। সেখানেও বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত  হয়েছিল।

চীনের একটি প্রদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের (কোভিড-১৯) কেয়ার সেন্টারে(আবাসিক হোটেল) এক অগ্নিকাণ্ডে ৩০জনের প্রাণহানী ঘটেছিল গত এপ্রিলে। 

বিএনএনিউজ/এসজিএন

আরও পড়ুন

লবণের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করলে কঠোর শাস্তি -ডিসি

Jishan Islam

মরগান-মালানে কিউইরা বিধ্বস্ত, সমতায় ইংল্যান্ড

Jishan Islam

চবিতে বিতর্ক প্রতিযোগিতা শুরু শুক্রবার

Jishan Islam