bnanews24.com
করোনা রোগী

দেশে করোনা রোগী আসলে কত?

বিএনএ, ঢাকা:  করোনা ভাইরাসের নিয়মিত বুলেটিন বন্ধের ঘোষণার মধ্যেই আলোচনা উঠেছে দেশে কোথায় কত আক্রান্ত তা নিয়ে। এক জরিপে দাবি করা হয়েছে, রাজধানীতে অন্তত ৮ শতাংশ পরিবারে উপসর্গহীন করোনা আক্রান্ত রয়েছে।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এবং আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) এর যৌথ জরিপে এ দাবি করা হয়। তবে সরকারের এ দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাদের দাবি, সরকার নির্ধারিত সংখ্যার তুলনায় অন্তত ১০ গুণ বেশি রোগী রয়েছে ঢাকা শহরে। রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তথ্য অনুযায়ী বুধবার পর্যন্ত দেশে করোনা ভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৬৬ হাজার ৪৯৮ জন। এদেরমধ্যে ঢাকা শহরে রোগীর সংখ্যা ৭১ হাজার ১৮৫ জন। হিসেবে দেখা যায়, সারাদেশে করোনা আক্রান্তের প্রায় ২৫ শতাংশ রোগীই ঢাকার।

কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী রোগীর সংখ্যা এক লাখের একটু বেশি। সে হিসেবে সংখ্যা দাঁড়ায় মোট রোগীর ৩৮ শতাংশ।

আইইডিসিআর ও আইসিডিডিআরবির জরিপ বলছে, ঢাকা শহরে মোট জনসংখ্যা অনুপাতে রোগী ৯ শতাংশ। ঢাকার মোট জনসংখ্যা হিসেবে মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়ায় ১৮-২০ লাখের মতো! আক্রান্তের মত করোনায় ঢাকাতে মৃত্যু সংখ্যাও বেশি। আইইডিসিআরের কর্মকর্তাদের দাবি, রাজধানীর আলাদা কোন হিসেব নেই। মৃত্যুর হিসাবে অর্ধেকের বেশি প্রাণহানি হয়েছে ঢাকা বিভাগে। সেকারণেই ঢাকা শহরে এখনো মৃত্যুর সংখ্যা সর্বোচ্চ।

এ ব্যাপারে আইইডিসিআরের উপদেষ্টা ও সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. মুশতাক হোসেন বলেন, কনফার্ম করা রোগী আইইডিসিআর ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে যা আছে, সেটাই। কিন্তু ২০০৯ সালে যে ইনফ্লুয়েঞ্জা মহামারী হয়েছিল, তখন রোগতাত্ত্বিক গবেষকরা দেখিয়েছেন, আইইডিসিআরের কনফার্ম করা রোগীর বাইরে অন্তত ১০ গুণ বেশি রোগী থাকে যারা মৃদু উপসর্গের। তারা নানা কারণেই পরীক্ষা করতে আসে না বা আসতে পারে না। করোনার সংক্রমণ হারও ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো সর্বোচ্চ ১ দশমিক ৫ শতাংশ।

সেখান থেকে বলা যায় অন্ততপক্ষে ১০ গুণ রোগী হিসাবের বাইরে আছে। সে হিসাবে আইইডিসিআর ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর যদি বলে এক লাখ, তাহলে রোগীর সংখ্যা হবে ১০ লাখ আর যদি ৬৭ হাজার হয়, তাহলে দাঁড়ায় ছয় লাখ। সে হিসাবে আইইডিসিআর ও আইসিডিডিআর,বি যে ৯ শতাংশ রোগীর কথা বলছে, সে হিসাবে ঢাকা শহরে রোগী দাঁড়ায় ১৮ লাখের মতো। অর্থাৎ নিশ্চিত করা রোগীর বাইরে ১০ গুণ রোগী আছে। ঢাকা শহরে রোগীর সংখ্যা বের করতে আইইডিসিআর ও আইসিডিডিআর,বির জরিপ নিয়েও প্রশ্ন তোলেন বিশেষজ্ঞরা। প্রতিষ্ঠান দুটি ১৮ এপ্রিল থেকে ৫ জুলাই ঢাকা শহরে একটি জরিপ করেছে। গতকাল প্রকাশিত সে জরিপে বলা হয়েছে, ঢাকা শহরে মোট রোগী শহরের জনসংখ্যার ৯ শতাংশ।

বিশেষজ্ঞরা এ জরিপ সঠিকভাবে হয়নি বলে মনে করেন। তাদের মতে, এটা মোট জনসংখ্যার অনুপাতে না বলে জরিপ চালানো বাসা ও তার বাসিন্দারের অনুপাতে বলা উচিত। এসব বিশেষজ্ঞ ঢাকা শহরে রোগী বেশি হওয়ার পেছনে ঘনবসতি, বিদেশ থেকে আসা মানুষের মূল ট্রানজিট পয়েন্ট ও সংক্রমণ প্রতিরোধে নেওয়া ব্যবস্থাপনার দুর্বলতাকে কারণ মনে করেন।

আরও পড়ুন

স্বামীকে দুধ দিয়ে গোসল করালেন যে কারণে

RumoChy Chy

যমুনার বালি দিয়ে হবে মোবাইল-ল্যাপটপ ব্যাটারি!

bnanews24

শহীদ মিনারে চার স্তরের নিরাপত্তা : ডিএমপি কমিশনার

bnanews24