২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ লাখ স্কাউট গড়ে তোলা হবে : প্রধানমন্ত্রী

বিএনএ, গাজীপুর : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের লক্ষ্যই হচ্ছে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাব। আর সে লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ লাখ স্কাউট গড়ে তোলা হবে। আমার লক্ষ্যটা থাকবে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেন প্রতিটা শিক্ষার্থী এই স্কাউট প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হয়।

আরো পড়ুন

চট্টগ্রামে ৩০ লক্ষ টাকার ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৪

হিরো আলমকে অভিনন্দন জানালেন তথ্যমন্ত্রী

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) গাজীপুরের মৌচাকে ৩২তম এশিয়া প্যাসিফিক একাদশ জাতীয় স্কাউট জাম্বুরির সমাপনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আজকের বাংলাদেশ দেখে আমাদের যে ধারণা, এক সময় বাংলাদেশ কিন্তু এটা ছিল না। ক্ষুধা, দারিদ্র্যতা নিত্য সঙ্গী ছিল। আমাদের প্রচেষ্টা হচ্ছে, ক্ষুধাদারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলা। আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ।

প্রতিটি ক্ষেত্রে স্মার্ট জনগোষ্ঠী গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ আজকে যতদূর এগিয়েছে, ভবিষ্যতে আমাদের আজকের শিশুকিশোরতরুণ বাংলাদেশকে আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

স্কাউট সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমার ভরসা আছে, তোমরা তা পারবে। কারণ আমি দেখেছি, দুর্যোগদুর্বিপাকে যেভাবে তোমরা মানুষের পাশে দাঁড়াও; মানবতার সেবাই তো বড় সেবা। মানুষের জন্য কাজ করতে পারলে সব থেকে আত্মতুষ্টি পাওয়া যায়। আমি সেটাই চাই, তোমরা সেভাবে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হও। মনে রাখবে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। আমাদের লালসবুজ পতাকা লাখো মানুষের রক্তের চিহ্ন বয়ে বেড়ায়। দীর্ঘ সংগ্রামের পথ বেয়ে আমাদের এই স্বাধীনতা। এই স্বাধীনতা যেন ব্যর্থ হতে না পারে। স্বাধীনতার সুফল মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে হবে।

শেখ রাসেলকে স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘ছোট্ট সোনামণিরা, যখনই আমি তোমাদের মাঝে আসি তখনই আমার মনে পড়ে আমার ছোট্ট শিশু ভাইটি মাত্র ১০ বছরে ঘাতকের নির্মম বুলেট যাকে আমাদের মাঝ থেকে কেড়ে নিয়ে গেছে। তোমাদের মাঝে আমি খুঁজে ফিরি আমার ছোট্ট ১০ বছরের ভাই রাসেলকে।

বিএনএনিউজ/এইচ.এম।